স্বাস্থ্য

শ্বাসকষ্ট কেন হয়?

শ্বাসকষ্ট হয় কেন?

উত্তর : শ্বাসকষ্টের অনেক কারণ রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে অ্যাজমা, সিওপিডি, ব্রঙ্কাইটিস, ব্রঙ্কিউলাইটিস। এ ছাড়া নিউমোনিয়া, হার্টের কিছু সমস্যা, এর কারণেও শ্বাসকষ্ট হতে পারে।

শ্বাসকষ্ট হলে ক্ষতি কী?

উত্তর : আমি যদি অ্যাজমার কথা বলি, অ্যাজমায় শ্বাসনালির প্রদাহ হয়। প্রদাহ হয়ে শ্বাসনালিটা সরু হয়ে যায়। এতে বাতাস প্রবেশ করতে এবং বের হতে বাধা পায়। সিওপিডি একই রকম। যদি নিউমোনিয়া হয়, এতে যেখানে গ্যাস পরিবহন হয়, সেখানে বাধাপ্রাপ্ত হয়। ফুসফুসে পানি চলে এলে শ্বাসকষ্ট হতে পারে। এ ছাড়া যদি অক্সিজেন কোনো কারণে বাধাগ্রস্ত হয়, তাহলেও শ্বাসকষ্ট হতে পারে। মানসিক চাপ থেকে অনেক সময় শ্বাসকষ্ট হতে পারে।

শ্বাসকষ্ট কেন হয় –

১) কারো যদি এলার্জি থাকে তাহলে হতে পারে।
২) ব্রংকাইটিস এর রোগীদের হয়।
৩) ক্রনিক অবস্ট্রাক্টিভ পালমোনারি ডিজিজ হলে হতে পারে।
৪) আলফা-ওয়ান এনটিট্রিপসিন নামক এনজাইমের অভাব থাকলে হতে পারে।
৫) ধূলা-বালির মাঝে থাকলে হতে পারে।
৬) ধূমপায়ীদের হয়।
৭) যদি জন্মের পর ফুসফুস ঠিকমত কাজ না করে তাহলে হতে পারে।
৮) ঘন ঘন ভাইরাস অথবা ব্যাক্টেরিয়া দিয়ে আক্রান্ত হলে হতে পারে।
৯) ধোয়া থেকে হয়।
১০) এসপিরিন জাতীয় ওষুধের কারণে কখন ও কখন ও হতে পারে।
১১) কোন খাবারে এলার্জি থাকলে সেই খাবারের কারণে হতে পারে।
১২) পারফিউমের গন্ধ থেকে হতে পারে।
১৩) ঠান্ডাতে অনেকের হয়ে থাকে।
১৪) সাইনুসাইটিসের রোগীদের হতে পারে।
১৫) নিউমোনিয়া হলে হতে পারে।

শ্বাসকষ্ট হলে কি কি উপসর্গ দেখা যায় –

১) কাশি হয় অনেক।
২) কাশির সাথে কফ যায়।
৩) বুকের মাঝে অন্য রকম একটা কষ্ট হয়, যেন মনে হয় কেউ বুক চেপে রেখেছে।
৪) শ্বাস নেয়ার সময় শব্দ হয়।

শ্বাসকষ্ট প্রতিরোধঃ

১) এলার্জিযুক্ত খাবার না খাওয়া উত্তম।
২) ধূলাবালির থেকে দূরে থাকতে হবে।
৩) ধূমপান বন্ধ করে দিতে হবে।
৪) পারফিউম জাতীয় সুগন্ধি এড়িয়ে চলা ভাল।
৫) বাইরে বের হওয়ার সময় মাস্ক ব্যবহার করা।

শ্বাসকষ্টের চিকিৎসা –

১) শ্বাসকষ্ট প্রতিরোধে সাহায্য করে বুসোনাইড, ক্লোমিথাসেন, ফ্লুটিকাসোন নামক এন্টি ইনফ্লামেটরি ঔষূধ। তবে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ঔষুধ সেবন করবেন।
২) অতিরিক্ত শ্বাসকষ্ট হলে ঔষুধ সেবন করতে পারেন তবে তা অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী।
৩) ইনহেলার ব্যবহার করা।
৪) ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী এন্টিবায়োটিক খেতে পারবেন।
৫) পুষ্টিকর খাবার খাওয়া কারণ এই ধরণের রোগিদের বিএমআই খুব কম থাকে।
৬) বাসায় নেবুলাইজার রাখতে পারেন, হঠাৎ যদি শ্বাসকষ্ট শুরু হয় তাহলে ব্যবহার করতে পারবেন।

Tags
Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close